1. admin@chattogramsangbad.net : chattomsangba :
  2. editor@chattogramsangbad.net : editor :
আরাভের সঙ্গে পুলিশের সম্পর্কের অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে- চট্টগ্রামে আইজিপি - দৈনিক চট্টগ্রাম সংবাদ
June 15, 2024, 12:39 am

আরাভের সঙ্গে পুলিশের সম্পর্কের অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে- চট্টগ্রামে আইজিপি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : Monday, March 20, 2023
  • 86 বার পড়েছে

দুবাইয়ে বসবাসরত স্বর্ণ ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম ওরফে আরাভ খানের সঙ্গে পুলিশের ঊর্ধ্বতন সাবেক কোনো কর্মকর্তার সম্পর্ক আছে কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন। পাশাপাশি তাকে গ্রেপ্তারে ইন্টারপোলকে রেড নোটিশ পাঠানো হয়েছে জানিয়ে আইজিপি বলেন, ইন্টারপোল সেটি গ্রহণ করেছে।

সোমবার(২০ মার্চ) দুপুরে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) কোতোয়ালি থানার এনায়েত বাজার পুলিশ ফাঁড়ি উদ্বোধনের পর সাংবাদিকদের আইজিপি এসব কথা বলেন।

আরাভ খানের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, আমরা তার (আরাভ খান) বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করার জন্য ইতোমধ্যে ইন্টারপোলসহ বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ করছি। পুলিশের এক সদস্য হত্যা মামলায় তার বিরুদ্ধে যে নামে আমরা অভিযোগপত্র দিয়েছি, সেই নামে রেড নোটিশ জারি করে সেটা ইন্টারপোলে পাঠানো হয়েছে। এইমাত্র খবর পেলাম, ইন্টারপোল সেটি গ্রহণ করেছে। এতটুকু বলতে পারি যে, আমরা কাজ করছি। কীভাবে কাজ করছি কিংবা কী করছি সেটি আপাতত বলতে চাই না।

আরাভ খানের সঙ্গে পুলিশের ঊর্ধ্বতন সাবেক এক কর্মকর্তার সম্পর্কের গুঞ্জন নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, সেটি আমাদের নলেজে এসেছে। আমরা খতিয়ে দেখছি। উপযুক্ত সময়ে আমরা সেটি আপনাদের জানাব। আরাভ খানের সঙ্গে তারকাদের সম্পর্কের বিষয়ে তিনি বলেন, তার সঙ্গে তারকাদের কী সম্পর্ক, তারা কী কারণে তার কাছে গেছে সেটি আমরা ক্রমশ জানব। একটা অনুষ্ঠানে গেলেই কি তারা অপরাধে জড়িত বলা যায়? তারা সবাই দেশে ফিরুক, তখন আপনারাও তাদের কাছ থেকে জানতে পারবেন। তবে তারকারা তার কাছে গেছেন, এখন অনেকসময় প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনের কিছু বিষয় থাকে, সেখানে তারকারা যান। তার মানে তাদের সঙ্গে সম্পর্ক কিংবা তারাও জড়িত এমনটি এ মুহূর্তে বলা যাবে না। তবে আমরা খতিয়ে দেখছি।

কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসী কর্মকা- নিয়ে প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, সেখানে পরিস্থিতি সম্পূর্ণরূপে আমাদের নিয়ন্ত্রণে আছে। যত ঘটনাই ঘটেছে, তার সঙ্গে জড়িতরা ধরা পড়ছে। আসামিদের গ্রেপ্তার করছি। আমরা সবাই মিলে সেখানে দায়িত্ব পালন করছি। পুলিশ, জেলা পুলিশ, এপিবিএন, র?্যাব, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা, প্রশাসন, ট্রিপল আরসি- সকলে মিলে কাজ করছি। আইনশৃঙ্খলা বিঘœকারী কাজ যারা করছে, তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে প্রতিটি ঘটনায় ব্যবস্থা নিচ্ছি। এমন নয় যে, তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হচ্ছে।

কক্সবাজারে অপহরণ সংক্রান্ত আরেক প্রশ্নের জবাবে বলেন, যত ঘটনা ঘটেছে, প্রতিটি ঘটনায় ভিকটিমকে উদ্ধার করেছি। জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হচ্ছে। বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সেখানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি আমাদের নিয়ন্ত্রণে আছে, এখানে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো বিষয় নেই।

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর তলদেশে নির্মিত বঙ্গবন্ধু টানেলের নিরাপত্তার জন দুই পাশে দুটি থানা নির্মাণের কথা থাকলেও তা আর হয়নি। এ প্রসঙ্গে আইজিপি বলেন, আমরা যে প্রস্তাব দিয়েছি তা সরকারের উচ্চপর্যায়ে বিবেচনাধীন আছে।

চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে- এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মাহিয়া মাহি ইতোমধ্যে জামিন পেয়েছেন। যেহেতু মামলা হয়েছে, আমরা এতটুকু বলতে পারি যে, কারো ব্যাপারে অন্যায় করা হবে না।

জনগণের ট্যাক্সের টাকায় আমাদের বেতন হয়, তাই থানায় জনগণের সেবা নিশ্চিত করতে হবে। আমরা ভালো করছি, এজন্য আত্মতুষ্টিতে ভুগলে হবে না, আরও ভালো কীভাবে করা যায় ভাবতে হবে। তিনি আরও বলেন, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর ‘জিরো টলারেন্স নীতি’ বাস্তবায়নে আমরা দেশকে জঙ্গিবাদমুক্ত করতে সক্ষম হয়েছি । দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষা এবং জননিরাপত্তা বিধানে পুলিশ নিরলস কাজ করে যাচ্ছে । বঙ্গবন্ধুর ‘জনগণের পুলিশ’ হওয়ার জন্য প্রতিনিয়ত আমাদের সেবার মান বাড়াতে হবে। অসহায় মানুষ সেবা পেতে থানায় আসে। থানায় আসা মানুষ যেন তাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী সেবা পায় সেজন্য সকল পুলিশ সদস্যকে সচেষ্ট থাকতে হবে।

আইজিপি বলেন, জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ জনগণের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছে। তিনি পুলিশি সহায়তা পেতে ৯৯৯ এ কল করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

চট্টগ্রাম জেলার পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতির (পুনাক) সভানেত্রী ডা. তৈয়বা মুসাররাত জাঁহা চৌধুরী, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. আনোয়ার হোসেন, সিএমপি কমিশনার কৃষ্ণপদ রায়, চট্টগ্রাম রেঞ্জের বিভিন্ন জেলার পুলিশ সুপারগণ, জনপ্রতিনিধি, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ, ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাগণ এবং আমন্ত্রিত অতিথিরা উপস্থিত ছিলেন। পুরস্কার বিতরণ শেষে আইজিপি চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ আয়োজিত সুধী সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022
Customized By chattogramsangbad