1. admin@chattogramsangbad.net : chattomsangba :
  2. editor@chattogramsangbad.net : editor :
বাংলাদেশ আর কখনও পেছনে ফিরে তাকাবে না: প্রধানমন্ত্রী - দৈনিক চট্টগ্রাম সংবাদ
June 15, 2024, 2:38 am

বাংলাদেশ আর কখনও পেছনে ফিরে তাকাবে না: প্রধানমন্ত্রী

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট সময় : Sunday, February 12, 2023
  • 83 বার পড়েছে

সংবাদ ডেস্ক : বাংলাদেশ আর কখনও পেছনে ফিরে তাকাবে না, বরং প্রযুক্তির প্রসার ঘটিয়ে স্মার্ট দেশ হয়ে উঠতে আরও সামনে এগিয়ে যাবে বলে বলে আশা করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, “বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। আমরা বাংলাদেশে তথ্য প্রযুক্তির প্রসারের যে পদক্ষেপ নিয়েছি, এতে এই বাংলাদেশ হবে স্মার্ট বাংলাদেশ।“

রোববার (১২ ফেব্রুয়ারী) গাজীপুরের সফিপুরে আনসার ও ভিডিপি অ্যাকাডেমিতে বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপির ‘৪৩তম জাতীয় সমাবেশ-২০২৩ ’-এ ভাষণ দিচ্ছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকার প্রধান তার কথায় উন্নয়নের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বলেন, এসব কাজে আনসার বাহিনীরও অবদান আছে।

“আজকে শতভাগ বিদ্যুৎ দিতে পেরেছি, আমরা স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ উৎক্ষেপণ করেছি, আমাদের দেশে মেট্রো রেল চালু হয়েছে, পাতাল রেলও চালু হবে…। প্রতিটি স্থাপনার নিরাপত্তার সঙ্গে আনসার বাহিনী বিশেষভাবে জড়িত রয়েছে।“

বিএনপি-জামায়াতের ‘অগ্নি সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ’ দমন করে মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দেওয়ার কাজে আনসার বাহিনীর ভূমিকার প্রশংসা করেন শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, “অগ্নিসন্ত্রাস ও জ্বালাও পোড়াও যখন বিএনপি জামাত জোট শুরু করেছিল, বাস, ট্রেন, লঞ্চ, গাড়িতে যখন তারা আগুন দিচ্ছিল, আসনার বাহিনীর সদস্যরা তখন নিজ নিজ এলাকায় দায়িত্ব পালন করে এই অগ্নিসন্ত্রাস থেকে দেশের মানুষকে মুক্তি দিতে যথেষ্ট সহায়তা করেছে। তাছাড়া জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনেও ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে।“

পাশাপাশি খেলাধুলা এবং শরীরচর্চাসহ ক্রীড়াঙ্গনেও আনসার বাহিনীর সদস্যদের পুরস্কারপ্রাপ্তির জন্য প্রশংসা করেন শেখ হাসিনা।

গত বছর থেকে শুরু হওয়া রাশিয়া-ইউক্রেইন যুদ্ধ এবং এর প্রভাবে বিশ্ব অর্থনৈতিক মন্দার কথা মনে করিয়ে দিয়ে শেখ হাসিনা অনাবাদী জমিকে চাষাবাদের আওতায় আনার আহবান পুণর্ব্যক্ত করেন। এই কাজে গ্রামীণ জনগণ আনসার ও ভিডিপির সদস্যদের সহায়তা পাবে বলে তিনি প্রত্যাশা রাখেন।

শেখ হাসিনা বলেন, “গ্রামের মানুষদের দিয়ে ফসল উৎপাদন ও তা সংরক্ষণ করানোর মত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা কিন্তু আনসার ও আমাদের গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যরা পালন করতে পারেন। আমি আশা করি আপনারা তা রাখবেন।“

বাংলাদেশ আনসার বাহিনীকে এখন আধুনিক ও মডেল ব্যাটালিয়নের রূপ দেওয়া হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, “১৯৯৮ সালে আনসার বাহিনীকে জাতীয় পতাকা দিয়েছি। নানা সুযোগ-সুবিধা ও চাকরি স্থায়ী করেছি। আনসার বাহিনীর পদোন্নয়ন ও বিদেশে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

“আনসার সদস্যরা মাসিক যে ভাতা পান, তা বাড়ানো হয়েছে। ২৭টি উপজেলায় দৃষ্টিনন্দন অফিস ও আধুনিক সুবিধা সম্পন্ন অফিস নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দরিদ্র আনসার সদস্যদের জন্যও নতুন ঘরের ব্যবস্থা করে দিয়েছি। যখনই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে, তখনই আনসারদের জন্য সব কিছু করা হয়।“

মুক্তিযুদ্ধে আনসার বাহিনীর সদস্যদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা স্মরণ করে মেহেরপুরে মুজিব নগর সরকারকে এই বাহিনীর গার্ড অব অনার দেওয়ার ইতিহাসও তুলে ধরেন শেখ হাসিনা

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীকে কুচকাওয়াজের মাধ্যমে অভিবাদন জানানো হয়। এরপর তিনি প্যারেড পরিদর্শন ও সালাম গ্রহণ করেন।

প্রধানমন্ত্রী সকালে শফিপুরের আনসার একাডেমিতে পৌঁছালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এবং বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. একেএম আমিনুল হকসহ অন্যান্যরা তাকে স্বাগত জানান।

নিজ নিজ ক্ষেত্রে অবদানের জন্য ১৮০ জন আনসার ও ভিডিপি সদস্যের হাতে আটটি ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন পদক তুলে দেন শেখ হাসিনা।

পদক প্রাপ্তদের অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, এভাবেই আপনাদের কাজের স্বীকৃতি দিয়ে কাজের উৎসাহ যেন বৃদ্ধি পায় সেটাই আমরা নিশ্চিত করতে চাই। পরে প্রধানমন্ত্রী আনসার ও ভিডিপি সদস্যদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দেখেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2022
Customized By chattogramsangbad